Select Page

জগতটা হলো কল্পতরুর গল্পের মত। একটা লোক হাটতে হাটতে ক্লান্ত ক্ষুদার্ত হয়ে একটি গাছতলায় গিয়ে বসলো। কিন্তু সে জানতনা সেই গাছটি ছিলো কল্প তরুর গাছ। সেখানে কিছুক্ষন বিশ্রাম নেয়ার পরে সে ভাবলো এখন যদি ভালো মন্দ খাবার পাওয়া যেত তবে খুব ভালো হতো। সঙ্গে সঙ্গেই তার সামনে কিছু খাবার এসে হাজির হলো। লোকাটা ক্ষুদার তারনায় অতসত বিছার না খাবারগুলো খেয়ে নিলো। খাওয়া দাওয়ার পরে তার একটু ঘুম ঘুম পাচ্ছিল। সে আবার মনে মনে ভাবলো এ যদি এখানে একটি বিছানা পাওয়া যেত তাহলে খুব ভালো হত। সঙ্গে সঙ্গেই বিছানা এসে হাজির হলো। লোকটি অতসত বিছার না করে বিছানায় শুয়ে পরলো। বিছানায় শুয়ে লোকটি মনে মনে ভাবলো এখন যদি কেউ আমার পা দুটি টিপে দিতো তাহলে খুব ভালো হত। সঙ্গে সঙ্গেই কেউ এসে তার পাদুটি টিপে দিতে লাগলো। তখন লোকটা চমকে উঠে ভাবলো এটা কি ঘটতে চলেছে কোন ভুত নাত? আবার ভুত এসে গলা টিপে মেরে ফেলবে নাতো? সঙ্গে সঙ্গেই একটা ভুত এসে হাজির হয়ে লোকটাকে গলা ঠিপে মেরে ফেললো।

গল্পটা থেকে আমাদের শিক্ষা হলো- আমারা যেরকম ভাবছি সেরকম লাভ করছি। জগতটাকে যে রকর ভাবছি সেরকমই জগতটা আমাদের কাছে ধরা দিচ্ছে। আমরা যদি সৎ চিন্তা করি পরকালে সৎ চিন্তাগুলিই আমাদের সামনে আসবে। আর যদি অসৎ চিন্তা করি অসৎ চিন্তাই আমাদের সামনে আসবে। এ প্রসঙ্গে ইমাম গাজ্জালী (রহঃ) বলেছেন, কেবলমাত্র দুটি জিনিসই আমাদের সঙ্গে যা্বে। একটি হলো সৎ ভাবনা আর অন্যটি হলো অসৎ ভাবনা।