Select Page

যৌনসঙ্গম। ঋতুর সময়ে নিয়ম ও দিবস গনণাভেদের বিচার।

মহাদেব বললেন—আদ্য ঋতুর বিষয়ে তােমাকে অনেক কথাই বললাম। এবারে ঋতুকালীন নিয়ম ও ঋতুর পর বিভিন্ন দিনে নারীর কি বিভিন্ন নাম হয় তা বর্ণনা করছি, মন দিয়ে তা শােন। অর্থাৎ ঋতুর পর তিনদিন নারীর সঙ্গে কেমন ব্যবহার করতে হবে এবং সেই তিনদিন নারী কার মত হয়ে থাকে তা বলছি শােন।

যেদিন নারীজাতি প্রথম ঋতুমতী হয় সেদিন তার নাম চণ্ডালিনী, অর্থাৎ সেদিন সে চণ্ডালিনী সদৃশ হয়ে থাকে।

ঋতুর পর দ্বিতীয় দিনে নারী মহাপাপীয়সী।

তৃতীয় দিনে নষ্টস্বরূপা এবং চতুর্থ দিনে তপস্বিনী সদৃশ হয়।।

যৌন সঙ্গম

ঋতুর পর চতুর্থ দিনে নারী স্নান করলে তারপর সে পবিত্র হয়ে থাকে।

ঋতুর পর তাই তিনদিন স্নান করা নারীর নিষিদ্ধ—চতুর্থ দিনে স্নান করতে হয়।

ঋতুর পর প্রথম দিনে নারীকে স্পর্শ করবে না–ওই দিন নারীতে উপগত (নারী মিলন) হলে অতি অবশ্য পরমায়ু কমে যায়।

যদি দ্বিতীয় দিনে যৌনসঙ্গম করা হয়, তাহলে মহাপাপীয়সী-স্পর্শে সে পুরুষকে মহাপাপে লিপ্ত হতে হয়।

তৃতীয় দিনে নারীকে অবশ্যই পরিত্যাগ করবে অর্থাৎ সেই দিন নারীকে স্পর্শ করলে সেই নারী বেশ্যাবৃত্তি অবলম্বন করে এবং সেই পুরুষকেও বেশ্যাগমন পাপে লিপ্ত হতে হয়।

চতুর্থ দিনে নারী স্নান করে বিশুদ্ধ হলে তার পরে তাকে স্পর্শ করবে।

কিন্তু চতুর্থ দিনেও প্রথম প্রহরে সে অগম্যা থাকে, তাতে (যৌনসঙ্গম) গমনে জীবনী শক্তি ক্ষয় হয়।

” হে পার্বতি, এই ভাবে তুমি যা যা শুনতে চাইলে সব বিষয়েই তােমাকে বিস্ততভাবে বর্ণনা করে শােনালাম। তুমি সবই আশা করি স্মরণ রেখেছে। এখন আর কি কি বিষয় তুমি শুনতে চাও আমার কাছে বল, আমি নিশ্চয়ই, নিঃসন্দেহ চিত্তে তা তােমার কাছে বর্ণনা করব।

ঋতুমতী যদা নারী চণ্ডালী প্রথমেহহনি।

পাপীয়সী দ্বিতীয়ে চ তৃতীয়ে নষ্টরূপিণী ।

তপস্বিনী চতুর্থে চ সুতা চৈব বিশুদ্ধতি।

প্রধমেহহ্নি অগম্য চ গমনে জীবনক্ষয়ঃ ।।

মহাপাপা দ্বিতীয়ে স্যাৎ তৃতীয়ে রমণীং ত্যজেৎ।

অন্যথা স চ নষ্টা স্যাৎ ইতি শাস্ত্রবিদাং মতং ।

সূত্রঃ বৃহৎ রতিশাস্ত্র

যৌন মিলন ঋতুর কোন তারিখের করলে কি রকম সন্তান হয়।